বাবার লাশ ছেলে ধরে নাই : শামীম ওসমান

প্রেসবাংলা ২৪. কম : নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান বলেছেন, নারায়ণগঞ্জেই প্রথম কোভিড এলো। উহান হয়ে গেল নারায়ণগঞ্জ। এই নারায়ণগঞ্জে আমি দেখলাম অনেক বাবার লাশ ছেলে ধরেন না। আমরা দেখলাম গিটারিস্ট একটা ছেলের লাশ সারারাত বাবুরাইল পড়ে ছিল। কেউ লাশটা উঠিয়ে নেয়নি।

মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) সদর উপজেলার ইউএনও আরিফা জহুরার বিদায় ও নতুন ইউএনও মো. রিফাত ফেরদৌসের বরণ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমান।

তিনি আরও বলেন, করোনার শুরুতে কেউ মারা গেলে তার লাশ পরিবারের কেউ ধরেননি। সেসময় সরকারের প্রশাসন, আওয়ামী লীগ এমনকি বিএনপির লোকেরাও মরদেহ দাফন করেছেন। বিএনপির খোরশেদ অনেক করেছেন।

তিনি বলেন, আমরা দেখেছি গলাচিপায় বাবার লাশ পড়ে আছে, সেই লাশ নিয়ে যাওয়ার সময় সন্তানরা বলেছে তোষকটাও নিয়ে যান, পুড়িয়ে ফেলুন নিয়ে। কিন্তু এটাও ঠিক নিয়ে গেছেন যারা তারা বাইরের লোক।

এদের মধ্যে সরকারের প্রশাসনের লোক আছেন। আওয়ামী লীগের লোকজনও আছেন।
আমি আজকে সত্যি করে বলতে চাই বিএনপিরও অনেকে আছেন। এই যে বিএনপির খোরশেদ, সেও অনেক কাজ করেছেন। জানাযা দিয়েছেন, মানুষের মরদেহ নিয়ে এসেছেন। এগুলোই থেকে যাবে দুনিয়ায়।

শামীম ওসমান বলেন, এই করোনাকালে আমরা মানুষ চিনেছি। এটা কেউ ভুলবেন না। নারায়ণগঞ্জের কী দৃশ্য যে আমরা দেখেছি। একটা হাসপাতালে যখন রোগী ভর্তি করতে পেরেছি সঙ্গে সঙ্গে নফল নামাজ পড়েছি। আবার যখন বেরিয়ে এসেছে তখনও নফল নামাজ পড়েছি।

এ সময়ে আরও উপস্থিত ছিলেন শামীম ওসমানের স্ত্রী সালমা ওসমান লিপি, সদর উপজেলার চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ বিশ্বাস, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফাতেমা মনির, আলীরটেক ইউনিয়ের চেয়ারম্যান জাকির হোসেন, এনায়েত নগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান, বক্তাবলী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শওকত আলী, কুতুবপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মনিরুল আলম সেন্টু সহ আরও অনেকে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com