ফেসবুকে স্ত্রীর লাশ খোঁজে পায় কামরুল

প্রেসবাংলা ২৪.কম: নিখোঁজের পর খোজাঁখুজি করে না পেয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যমে স্ত্রীর লাশ শনাক্ত করতে পেরেছেন কামরুল হাসান নামের এক ব্যক্তি। গত ১৬ সেপ্টেম্বর তার স্ত্রী গত বৃহস্পতিবার ব্যাংক থেকে ২ লাখ ৭০ হাজার টাকা উত্তোলন করে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের গাউছিয়ার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়। পরে সেখান থেকে গন্তব্যে না গিয়ে নিখোঁজ হয়। বিভিন্ন স্থানে খোজাঁখুজির পর শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখতে পেয়ে পরিচয় শনাক্ত করেন।

 

সনাক্ত নিহত ওই নারী আঞ্জুমান আরা। সে ঝালকাঠি সদর উপজেলার কামরুল হাসানের স্ত্রী।

 

নিহতের স্বামী কামরুল হাসান জানান, নিখোঁজের পর অনেক খোজাখুজি করেও তার সন্ধান পাইনি। পরে ফেসবুকে অজ্ঞাত এক নারীর লাশ দেখে সনাক্ত করতে পারি ঐটা আমার স্ত্রী। পরে কামরুল ইসলাম বাদি হয়ে সোনারগাঁ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

 

সোনারগাঁ থানার ওসি মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান জানান, উপজেলার জামপুর ইউনিয়নের তালতলা এলাকায় রাস্তার পাশে শুক্রবার সকালে একটি অজ্ঞাত নারীর লাশ দেখে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেন। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

 

তিনি আরও বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখতে পেয়ে তার স্বামী কামরুল হাসান তার স্ত্রীর পরিচয় শনাক্ত করেন। ময়নাতদন্তের পর লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে। থানায় একটি হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে। ধারণা করা হচ্ছে রাতের আঁধারে দুর্বৃত্তরা অন্য কোথাও হত্যা করে এখানে ফেলে চলে যায়।

0 0 vote
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x