সিদ্ধিরগঞ্জে দাফনের ১৫ দিন পর নারীর মরদেহ উত্তোলন

প্রেসবাংলা ২৪. কম: নারায়ণগঞ্জের দাফনের ১৫ দিন পর আদালতের নির্দেশে এক গৃহবধূর মরদেহ উত্তোলন করা হয়েছে। সোমবার (১৫ নভেম্বর) সোমবার বিকেলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাসেল ইসলাম নূরের উপস্থিতিতে এবং পুলিশের সহায়তায় মরদেহটি উত্তোলন করা হয়। পরে ময়নাতদন্তের জন্য জেনারেল (ভিক্টোরিয়া) হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

 সিদ্ধিরগঞ্জের বার্মাস্ট্যান্ড এলাকার একটি কবরস্থান থেকে বিকেল ৩টায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে মরদেহ উত্তোলন করা হয় বলে জানিয়েছেন সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) হুমায়ূন কবির।

নিহত গৃহবধূ কলি আক্তারের মামা পলাশ মিয়া বলেন, কলির মৃত্যুর পর তার মা মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ছিলেন। এজন্য তখন কোনো মামলা বা অভিযোগ করা হয়নি। পরবর্তী সময়ে কলির স্বামী স্বপন প্রধানের মধ্যে অস্বাভাবিক আচরণ দেখা যায়। তিনি কলির মৃত্যু নিয়ে নানা অপপ্রচার চালান। এতে কলির মা ও তার আত্মীয়-স্বজনদের মধ্যে সন্দেহ বাড়ে। পরে তারা আদালতে অভিযোগ করেন কলি হত্যার শিকার হয়েছেন। আদালত বিষয়টি আমলে নিয়ে রোববার নির্দেশ দেন কবল থেকে মরদেহ উত্তোলনের।
সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মশিউর রহমান বলেন, মরদেহ উত্তোলন করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com