অনলাইনে পরীক্ষার দাবি কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের

জাককানইবি প্রতিনিধি, প্রেসবাংলা ২৪.কম  :  করোনার কারণে দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলো অনলাইন ক্লাসের পর এবার হাঁটছে অনলাইন পরীক্ষার পথে। দুর্বল নেটওয়ার্ক, অধিক মূল্যের ডাটাপ্যাকসহ নানা প্রতিবন্ধকতায় অনলাইন ক্লাস চললেও পরীক্ষা নেওয়া আদৌ সম্ভব কি না, তা নিয়ে শিক্ষার্থীদের মধ্যে সংশয় দেখা দিয়েছে। তবে, বেশির ভাগ শিক্ষার্থীর মত সেশনজট কমানোর জন্য অনলাইনে পরীক্ষার বিকল্প নেই। তবে, কয়েকজন বিপক্ষেও মত দিয়েছেন।

অনলাইন পরীক্ষা নিয়ে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন শিক্ষাবর্ষের নারী শিক্ষার্থীদের মতামত তুলে ধরছেন  ক্যাম্পাস সংবাদদাতা মো. ফাহাদ বিন সাঈদ।

লোক প্রশাসন ও সরকার পরিচালনা বিদ্যা বিভাগের শিক্ষার্থী সুমাইয়া শারমীন শিমু বলেন, অনলাইন পরীক্ষা মানে ওপেন বুক পরীক্ষা। এতে করে দেখা যাবে অনেক শিক্ষার্থী দেখে লিখবে কিংবা কপি করবে। তবে অনলাইনে অনেক প্ল্যাটফর্ম আছে, যেখানে সময় ধরে বেঁধে দিয়ে পরীক্ষা দেওয়া সম্ভব যেমন -গুগল ক্লাসরুম, এক্সাম ডট নেট ইত্যাদি। এতে শিক্ষার্থীদের সেশনজট নামক ভয়ঙ্কর বিষয় থেকে মুক্তি পাবে। কিছুটা হলেও সময় লাঘব হবে।

পরিসংখ্যান বিভাগের সায়মা ইসলাম বলেন, অনলাইন পরীক্ষা এটি যেমন বর্তমান সময়ে শিক্ষার্থীদের এগিয়ে যাওয়ার এক সুযোগের নাম, তেমনি ভোগান্তিও বটে। আমি ব্যক্তিগতভাবে অফলাইন পরীক্ষার পক্ষে। কারণ, আমার মনে হয় এতে নেটওয়ার্কজনিত অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনাগুলো এড়ানো যায় এবং মেধার সঠিক মূল্যায়ন হয়। তবে বর্তমানে যা পরিস্থিতি, তাতে শিক্ষার্থীদের এগিয়ে নিয়ে যেতে হলে অনলাইন পরীক্ষার কোনো বিকল্প উপায় খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

তবে, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন যদি সব শিক্ষার্থীর নেটওয়ার্কের আওতায় এনে, তাদের ডাটা প্যাক কেনার খরচ দিয়ে, উপযুক্ত প্রশিক্ষণ দিয়ে, পাশাপাশি শিক্ষার্থী বান্ধব পরীক্ষা পদ্ধতির মাধ্যমে পরীক্ষাগুলো নেওয়া হয়, তাহলে সফল হবে বলে মনে করি।

0 0 vote
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x