শিমরাইলে মুরগি রিপনের চাঁদাবাজিতে অতিষ্ঠ ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা

শিমরাইলে মুরগি রিপনের চাঁদাবাজিতে অতিষ্ঠ ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি, প্রেসবাংলা২৪.কম: ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল থেকে প্রতিদিন পুলিশের নাম ভাঙিয়ে চাঁদা আদায় করছে রিপন ওরফে মুরগি রিপন। মুরগি রিপনের এই চাঁদাবজিতে অতিষ্ঠ হয়ে পরেছে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, আইনসৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে তার সহযোগী ধরা পরলেও অধরা মুরগি রিপন। অভিযোগ রয়েছে, মুরগি রিপনের চাঁদা আদায়ের বড় একটা অংশ পুলিশের পকেটেও যায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে রিপন ওরফে ‘মুরগী রিপন’ নামের এক চাঁদাবাজ তার নিয়োজিত লোকদের (জামাল, শাকিল, নাসির ও রুহুল আমিন) দিয়ে পুলিশের নামে চাঁদা উত্তোলন করে। তাদের পাশাপাশি এ ফুটপাতে এক শ্রেণির প্রভাবশালী ব্যক্তি, জনপ্রতিনিধির সহযোগী ও স্থানীয় চাঁদাবাজরা এসব দোকানপাট থেকে দৈনিক ১৫০ টাকা থেকে ৩০০ টাকা পর্যন্ত চাঁদা আদায় করে থাকেন। দোকান প্রতি ১ লাখ টাকা থেকে ৮ লাখ টাকা পর্যন্ত অগ্রিম নেয় এ চাঁদাবাজ চক্র।

ব্যবসায়ীদের অভিযোগ, ‘মুরগী রিপন ও তার সহযোগীরা প্রতিদিন মোটা অংকের এই টাকা উত্তোলন করেন পুলিশ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর একাধিক বিভাগের নাম করে। রিপন প্রতিদিন আমাদের কাছ থেকে পুলিশের ভয় দেখিয়ে চাঁদা আদায় করে। রিপন আড়ালে থেকে তার সহযোগীদের মাধ্যমে এই মোটা অংকের চাঁদা আদায় করে থাকে। মুরগি রিপনকে চাঁদা না দিলে তিনি ও তার বাহিনীর সদস্যরা আমাদেরকে শারীরিক নির্যাতনের পাশাপাশি উচ্ছেদের হুমকিসহ পুলিশ দিয়ে হয়রানি করার হুমকি দেয়। ফলে বাধ্য হয়ে আমরা তাকে ও তার নিয়োজিত ব্যক্তিদের প্রতিদিন চাঁদা দেই। প্রশাসনের কাছে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের দাবি অতি দ্রুত যেনো চাঁদাবাজ মুরগি রিপনকে গ্রেফতার করা হয়।

এ ব্যাপারে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মশিউর রহমান বলেন, ফুটপাত থেকে আমাদের পুলিশ কোনো টাকা নেয় না। পুলিশের নাম ভাঙিয়ে কেউ চাঁদাবাজি করলে তাকে ছাড় দেওয়া হবে না। চাঁদাবাজির বিষয়ে এখনো কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, গত ১ ফেব্রুয়ারী সিদ্ধিরগঞ্জস্থ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে শিমরাইল মোড়ে পথচারী ও রিক্সা চলাচলের লেন দখল করে অবৈধভাবে গড়ে উঠা ফুটপাতের দোকান থেকে চাঁদাবাজির সময় চাঁদাবাজ রিপন ওরফে মুরগি রিপনের সহযোগী জামাল হোসেনকে গ্রেফতার করেছে জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ১১মে সিদ্ধিরগঞ্জের হিরাঝিল আবাসিক এলাকায় পতিতা নিয়ে ফূর্তি করতে গিয়ে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছিলেন মুরগি রিপন।

0 0 vote
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
কপিরাইট © ২০২০ | প্রেসবাংলাটুয়েন্টিফোরডটকম
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x