ধর্ষণের অভিযোগ পুলিশ কনস্টেবল আটক

 

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি, প্রেসবাংলা২৪ডটকম: নগরীর উত্তর চাষাঢ়া এলাকায় এক গৃহবধূকে অচেতন অবস্থায় ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে নৌ-পুলিশের এক কনস্টেবলের বিরুদ্ধে। ধর্ষণের পর ভুক্তভোগীর অশ্লীল ছবি ধারণ করে তা ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে আড়াই লাখ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার হাতিয়ে নেওয়া হয়েছে বলেও অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী নারী।

 

অভিযুক্ত নৌ-পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ এনে সোমবার (২৬ আগস্ট) সদর মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী নারী।

 

এদিকে অভিযুক্ত পুলিশ সদস্য সাব্বির আহমেদ মেহেদীকে গ্রেফতার করেছে জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ।

 

অভিযুক্ত সাব্বির আহমেদ মেহেদী চাঁদপুর হাজীগঞ্জ থানা মালিগাঁও এলাকার মো. আনোয়ার হোসনের ছেলে। সে সিদ্ধিরগঞ্জ সানারপাড় পদ্মকুড়ি স্কুলের সামনে মো. মিজানুর রহমানের বাড়ির ভাড়াটিয়া।

 

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ভুক্তভোগী নারী দুই মেয়ে সন্তানকে নিয়ে মতিঝিল মডেল স্কুলে যাওয়া-আসা করার সময় সাব্বির আহম্মেদ মেহেদীর সাথে পরিচয় হয়। পরে তাদের মধ্যে মোবাইল ফোনেও বেশ কয়েকবার আলাপ হয়। গত ৭ আগস্ট সাব্বির ওই নারীর মোবাইলে কল করে জরুরি কথা আছে বলে দেখা করতে বলে। সে সময় শহরের উত্তর চাষাঢ়ায় ভাইয়ের বাসায় ছিলেন ওই নারী। পরে সাব্বিরকে বাসায় আসতে বলেন তিনি।

 

ভুক্তভোগী নারী মামলায় বলেন, সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় সাব্বির আমার ভাইয়ের বাসায় আসার সময় সঙ্গে একটি কোকাকোলার বোতল নিয়ে আসে। সে আমাকে কোকাকোলা খাওয়ানোর পর আমি অচেতন হয়ে যাই। তখন বাসায় কোন লোকজন না থাকার সুযোগে সে আমাকে ধর্ষণসহ বিভিন্ন ধরনের অশ্লীল ছবি তুলে রাখে। পরবর্তীতে আমার জ্ঞান ফিরলে সাব্বির আমাকে হুমকি দেয় যে, তোমার নোংরা ছবি আমার কাছে আছে। উক্ত বিষয়ে কাউকে জানালে আমি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দিবো। এ সুযোগে আরো কয়েকবার সে বিভিন্ন জায়গা নিয়ে ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে অশ্লীল ছবির ভয় দেখিয়ে ৩ লাখ টাকা দাবি করে। পরে মান সম্মানের ভয়ে ২ লাখ টাকা দেই। আর সাব্বির আমার কিছু স্বর্ণগহনা হাতিয়ে নেয়। পরবর্তীতে সাব্বির বাকি ১ লাখ টাকা দেওয়ার জন্য চাপ প্রয়োগ করে এবং গত ১১ আগস্ট বিকাশের মাধ্যমে ৩০ হাজার টাকা দেই। পরে আমি সাব্বিরকে আর টাকা দিবো না বললে তার মোবাইলের অশ্লীল ছবিগুলো আমার মোবাইলে পাঠিয়ে দেয়। এসব ছবি আমার স্বামীর মোবাইলে সহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দিবে সহ বিভিন্ন ভয়ভীতি ও হমকি প্রদান করে তাই ভয়ে ভাইয়ের বাসায় এসে থাকছি।

 

ভুক্তভোগী নারীর ভাই জানান, তাকে ডিবি জানিয়েছে অভিযুক্ত মেহেদী ডিএমপির পুলিশ কনস্টেবল। কিন্তু কোন এলাকার সেটা স্পষ্ট করেনি।

 

নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার পরিদর্শক (অপারেশন) জয়নাল আবেদীন জানান, এক নারী বাদী হয়ে ধর্ষণের মামলা করেছেন। মামলাটি ডিবি তদন্ত করছে।

 

ডিবির পরিদর্শক এনামুল হক জানান, মেহেদী নামের এক যুবককে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে, সে ঢাকা নৌ-পুলিশের কনস্টেবল।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com